পশ্চিমবঙ্গ কন্যাশ্রী প্রকল্প ২০২২- k1, k2 এবং k3 স্কলারশিপে যোগ্যতা এবং ডকুমেন্ট কি লাগবে?

কন্যাশ্রী প্রকল্প হল পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার কর্তৃক অনুমোদিত সেরা প্রকল্পগুলির মধ্যে অন্যতম একটি প্রকল্প। কন্যাশ্রী প্রকল্পটি পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী কর্তৃক সূচিত হয়েছিল, এর প্রবর্তনের পিছনে কারণ বা উদ্দেশ্য ছিল পশ্চিমবঙ্গের সমস্ত মহিলাদের শিক্ষার হার বৃদ্ধি করা।

এই প্রকল্প/স্কিমটি রাজ্যে তথা ভারতবর্ষে অত্যন্ত প্রশংসিত। কন্যাশ্রী প্রকল্প শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষা চালানোর জন্য সমস্ত আর্থিক সুবিধা প্রদান করে। আজকের পোস্টে, আমরা এই প্রকল্পের অধীনে K1, K2, এবং K3-স্কলারশিপ এর সুবিধাগুলি পেতে বিস্তারিত তথ্য যেমন,আপনি কীভাবে অনলাইনে আবেদন করতে পারেন, যোগ্যতার মানদণ্ড কী, কী কী নথিপত্র প্রয়োজন হবে , সেই সমস্ত বিবরণ জানতে বিস্তারিত পড়ুন।

Kanyashree Prakalpa 2022 complete details

Contents

পশ্চিমবঙ্গ কন্যাশ্রী প্রকল্পের সংক্ষিপ্ত বিবরণ

স্কিম/প্রকল্পের নামপশ্চিমবঙ্গ কন্যাশ্রী প্রকল্প(West Bengal Kanyashree Prakalpa)
প্রকল্পের উদ্দেশ্যউচ্চ শিক্ষা প্রদান
চালু করেছেWest Bengal সরকার, পশ্চিমবঙ্গ
প্রকল্পের প্রকারk1, k2 এবং k3
সুবিধাভোগীরাজ্যের মেয়েরা
সুবিধাk1-এর জন্য 750 টাকা এবং k2-এর জন্য 2,500 টাকা

কি এই প্রকল্প?

এই সরকারি প্রকল্পটি শুধুমাত্র রাজ্যের মেয়েদের জন্য একটি ব্যতিক্রমী প্রকল্প, যার প্রাথমিক লক্ষ্য হল রাজ্যের সমস্ত মেয়েদের প্রাথমিক শিক্ষা প্রদান করা যাতে তারা ভবিষ্যতে নিজেদের তথা পরিবারের নাম উজ্জ্বল করতে পারে।

অনেক ক্ষেত্রে পারিবারিক আর্থিক সীমাবদ্ধতার কারণে বাবা-মা তাদের মেয়েদের লেখাপড়ার দায়িত্ব বহন করতে পারেন না এবং মাঝ পথেই লেখাপড়া ছাড়তে বাধ্য হন। এই সমস্যাটি নিবারণ করতে কন্যাশ্রী প্রকল্পটি চালু করা হয়েছে।

কন্যাশ্রী প্রকল্পের প্রকারভেদ- k1, k2, এবং k3 স্কলারশিপ

রাজ্য সরকার এই প্রকল্পটির সুবিধা তিনটি স্কলারশিপ এর মাধ্যমে বিতরণ করে যাতে রাজ্যের সমস্ত মেয়েরা কন্যাশ্রী প্রকল্পের সুবিধা নিতে পারে, যেগুলি হল k1, k2 এবং k3 স্কলারশিপ ৷

  • কন্যাশ্রী k1 বৃত্তি 13-18 বছর বয়সী মেয়েদের দেওয়া হয়। এই বৃত্তির মাধ্যমে মেয়েদের শিক্ষার জন্য প্রতি মাসে 750 টাকা দেওয়া হয়।
  • কন্যাশ্রী K2 স্কলারশিপ 18-19 বছর বয়সী মেয়েদেরকে দেওয়া হয় যারা মাদ্রাসা বা স্কুলে পড়াশোনা কমপ্লিট করেছে। এই প্রোগ্রামের মাধ্যমে মেয়েদের প্রতি বছর 25,000 টাকা দেওয়া হয়। যাতে তারা ভবিষ্যতে যেকোনো ভালো কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চশিক্ষা সম্পন্ন করতে পারে।
  • স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জনকারী এবং আরও পড়াশোনা চালিয়ে যেতে ইচ্ছুক মেয়েদের কে 3 বৃত্তি প্রদান করা হয়। এক্ষেত্রে সরকার আর্থিক সহায়তা প্রদান করে। বিজ্ঞান অধ্যয়নরত সমস্ত মেয়েদের প্রতি মাসে 2,500 টাকা এবং আর্টস শিক্ষার্থীদের প্রতি মাসে 2,000 টাকা প্রদান করা হয়।

k1, k2, k3 স্কলারশিপের জন্য কী কী শর্ত রয়েছে

কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য যোগ্যতার মানদণ্ডগুলি কী কী তা আমরা এখন বিশদভাবে আলোচনা করব। এই স্কিমের সুবিধাগুলি পাওয়ার জন্য কিছু শর্ত রয়েছে এবং আপনি শুধুমাত্র এই বৃত্তির জন্য অর্থ পাবেন যদি সেগুলি পূরণ হয়, যেরকম:

  • এই স্কিমটি পশ্চিমবঙ্গ সরকার দ্বারা অনুমোদিত হয়েছিল, তাই শুধুমাত্র এই রাজ্যের বাসিন্দারাই এই বৃত্তি থেকে উপকৃত হতে পারেন।
  • রাজ্যের মেয়েদের জন্য এই প্রকল্প চালু করা হয়েছে। যেকোন সরকারী, বা অর্ধ-সরকারী স্কুলের পড়ুয়ারা এই বৃত্তির টাকা পাবেন।
  • যারা কন্যাশ্রী K1 বৃত্তির জন্য আবেদন করতে চান তাদের বয়স 13-17 বছর হতে হবে। কন্যাশ্রী K2 প্রকল্পের জন্য আবেদনকারীদের বয়স 18-9 বছরের মধ্যে হতে হবে।
  • যারা এই স্কিমের জন্য আবেদন করছেন তাদের পরিবারের বার্ষিক আয় এক লক্ষ বিশ হাজার টাকার কম হওয়া উচিত।
  • অবিবাহিত মেয়েরা এবং স্কুল, কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীরা কন্যাশ্রী প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারেন।

কন্যাশ্রী প্রকল্পে আবেদনের শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং ডকুমেন্ট কি কি লাগবে?

কন্যাশ্রী k1 এবং k2 বৃত্তির জন্য যোগ্যতার মানদণ্ড একই, ক্লাস 8 থেকে 12 শ্রেণীতে অধ্যয়নরত সমস্ত মেয়ে ছাত্রীরা কন্যাশ্রী k1 এবং k2-এর জন্য আবেদন করতে পারে৷

  • K3 বৃত্তির জন্য শুধুমাত্র যারা কন্যাশ্রী k2 প্রকল্পের জন্য আবেদন করেছেন তারাই অনলাইনে নিবন্ধন করতে পারবেন।
  • কন্যাশ্রী K3 বৃত্তি পেতে, আপনাকে অবশ্যই শেষ স্নাতক পরীক্ষায় কমপক্ষে 45% নম্বরের সাথে পাশ করতে হবে।
  • কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত মেয়েরা K3 বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারে, এই বৃত্তির জন্য ছাত্রীদের কোন বয়সসীমা আপাতত নেই।
কন্যাশ্রী প্রকল্পে আবেদন করার জন্য আপনার কিছু গুরুত্বপূর্ণ নথি থাকতে হবে যা আমরা নীচে উল্লেখ করেছি:
  • আধার কার্ড
  • রেশন কার্ড
  • পরিবারের বার্ষিক আয়ের শংসাপত্র
  • বসবাসের শংসাপত্র
  • শিক্ষার শংসাপত্র
  • আবেদনকারীর ব্যাংক একাউন্ট
  • আবেদনকারীর ছবি

আপনি যখন কন্যাশ্রী প্রকল্প এর জন্য অনলাইনে আবেদন করেন তখন এই সমস্ত নথিগুলির প্রয়োজন হবে।

kanyashree Apply track status

কন্যাশ্রী প্রকল্পের আবেদনের স্থিতি কীভাবে চেক করবেন?

আমরা এখন আপনাদের দেখাব কিভাবে আপনারা ফর্ম এর বর্তমান অবস্থা চেক করবেন। আপনি যদি ইতিমধ্যেই কন্যাশ্রী প্রকল্পে নিবন্ধিত হয়ে থাকেন তবে আপনি একটি আবেদন নম্বর বা আইডি পাবেন। আবেদনের স্থিতি চেক করার জন্য নিচের পক্রিয়াগুলো মেনে চলুন:

  • প্রথমে, আপনাকে কন্যাশ্রী প্রকল্পের ওয়েবসাইট, kanyashree.gov.in-এ যেতে হবে এবং তারপরে আপনার id দিয়ে লগ ইন করতে হবে।
  • এরপর, আপনাদের “application option” এ ক্লিক করতে হবে।
  • Check status page এ আপনাকে অবশ্যই আপনার আবেদন নম্বর লিখতে হবে এবং সাবমিট করতে হবে।
  • একবার জমা দিলে, আপনি আপনার আবেদনের বর্তমান অবস্থা দেখতে পাবেন।

কন্যাশ্রী প্রকল্পে কিভাবে আমরা আবেদন করবো?

আমাদের উল্লিখিত ওপরের গুরুত্বপূর্ণ নথিগুলি যদি আপনার কাছে থাকে তবে আপনি এই বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারবেন। আমরা এই প্রকল্পে অনলাইন আবেদন করতে পারিনা,তবে আপনি দুয়ারে সরকার ক্যাম্পের মাধ্যমে আবেদন করতে পারেন।

কন্যাশ্রী প্রকল্পে নিবন্ধন করার জন্য আপনার একটি আবেদন পত্রের প্রয়োজন হবে, আপনি আপনার স্কুল বা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এই নিবন্ধন ফর্মটি পাবেন। এই ফর্মটি সম্পূর্ণ বিনামূল্য। একবার আপনি ফর্মটি পূরণ করে আপনার স্কুল বা বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দিলেই আপনার নিবন্ধন হয়ে যাবে।

কিছু প্রশ্নাবলী

আমি কিভাবে K2 কন্যাশ্রীর জন্য আবেদন করব?

k2 কন্যাশ্রী বৃত্তির জন্য নিবন্ধন সম্পূর্ণ করতে আপনার প্রতিষ্ঠানের সাথে যোগাযোগ করুন এবং k2 ফর্ম সংগ্রহ করুন, পূরণ করুন এবং জমা দিন এবং আবেদনের অবস্থার উপর নজর রাখুন।

কন্যাশ্রী প্রকল্প থেকে আমরা কত টাকা পাই?

পশ্চিমবঙ্গ সরকার এই প্রকল্পটি k1, k2 এবং k3 তিনটি ধাপে অফার করে। k1 আবেদনকারীরা 750/প্রতিমাস পায়, k2 আবেদনকারীরা শুধুমাত্র একবারের জন্য 25000 টাকা পায় এবং k3 আবেদনকারীরা 2500 টাকা/প্রতি মাস পায়।

কন্যাশ্রী K2 এর জন্য করা করা আবেদন করতে পারে?

যে সব মেয়ের বয়স 18-19 বছরের মধ্যে এবং যে কোনও সরকারি স্কুলে ভর্তি হয়েছে তারা কন্যাশ্রী প্রকল্প k2 বৃত্তির জন্য আবেদন করতে পারেন।

Disclaimer: আমাদের ওয়েবসাইট কখনও দাবি করে না যে এখানে উপস্থিত সমস্ত তথ্য 100% সঠিক, আমরা সরকারী পোর্টাল থেকে তথ্য সংগ্রহ করেছি। তাই আপনার যদি কোনো প্রশ্ন থাকে তাহলে আপনি সঠিক সমাধান খুঁজতে কন্যাশ্রী প্রকল্পের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটটি দেখতে পারেন।

Leave a Comment